শিরোনাম
সোমবার  ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং  |  ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  |  ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরী

অপরাধ করলে অভিবাসীদের ফেরত পাঠাবে জার্মানি

কোলনে যৌন হামলার ঘটনায় চাপের মুখে আছেন অ্যাঙ্গেলা মের্কেল

নববর্ষ উদযাপনের সময় জার্মানির কোলন শহরে নারীদের ওপর যৌন হামলার ঘটনায় খোদ জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেলের দল- ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ভেতরেই ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

দলের নেতারা দাবি করছেন অপরাধের সাথে জড়িত অভিবাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইন করার।

তারা চাইছেন লোকজনকে যাতে সহজেই জার্মানি থেকে ফেরত পাঠানো যায় সেরকম একটি আইন।

এই আঙ্গেলা মের্কেলই গত বছর ১০ লাখেরও বেশি শরণার্থীকে জার্মানিতে স্বাগত জানিয়েছিলেন।

যৌন হামলার ঘটনা নিয়ে আঙ্গেলা মের্কেলের ওপর চাপ বাড়ছিল। আশ্রয়প্রার্থীরাই এসব হামলার পেছনে আছে বলে যে অভিযোগ করা হচ্ছে, তা আঙ্গেলা মের্কেলের পুরো অভিবাসন নীতিকেই প্রশ্নের মুখে ফেলে দেয়।

Image copyright AP
Image caption কোলনে যৌন হামলার ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যর্থতার অভিযোগ উঠেছে

নিজের দল থেকেই দাবি উঠে অভিবাসন নীতি পর্যালোচনা করে দেখার।

এসব চাপের মুখেই এখন জার্মান চ্যান্সেলর ঘোষণা করেছেন যে, যারা অপরাধ করবে, সেইসব আশ্রয়প্রার্থীদের যাতে নিজ দেশে ফেরত পাঠানো যায়, সেজেন্য তারা আইন সংশোধন করবেন।

আজ দলের বৈঠক শেষে তিনি বলেন, যারা অপরাধ করছে, তারা আইন লঙ্ঘন করছে। কাজেই এর একটা পরিণাম অবশ্যই হতে হবে।

বিবিসির সংবাদদাতা বলছেন, জার্মানির অভিবাসন বিরোধী গোষ্ঠীগুলো কোলনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এখন যেভাবে মের্কেলের অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে, তখন জনগণকে আশ্বস্ত করার জন্য তাকে কিছু একটা করে দেখাতে হচ্ছে। তার সামনে এখন বড় চ্যালেঞ্জ জনগণকে এটা বোঝানো, বিপুল পরিমাণ শরণার্থীকে সাদরে গ্রহণ করলেও জার্মানিরও একটা সহ্যের সীমা আছে।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com