মঙ্গলবার  ১৮ই মে, ২০২১ ইং  |  ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  |  ৫ই শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরী

৯ বছর পর ভারতের মাটিতে খেলবে পাকিস্তান ক্রিকেট দল

একটা সময় এই দুই দেশের ক্রিকেট ম্যাচ মানেই তুমুল উত্তেজনা। টিকিট ছাড়ার কয়েক ঘণ্টার মাঝেই সব শেষ হয়ে যাওয়া। মাঠের বাইরে কিংবা রাস্তার পাশের টিভির দোকানগুলোর সামনে অসংখ্য মানুষের ভিড়। সেই দৃশ্য গত প্রায় এক দশক ধরে কালেভদ্রে দেখা যায়। ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখিই হয় কালেভদ্রে। সেটাও আবার আইসিসির কোনো টুর্নামেন্টে। আসন্ন আইসিসি টি-টোয়ন্টি বিশ্বকাপেও দুই দলের দেখা হবে। তবে এবার সেটা ভারতের মাটিতে!

অবাক হওয়ার মতোই ঘটনা। রাজনৈতিক কারণে দুই দেশের মাঝে বহুদিন ধরেই যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। প্রায়ই সীমান্তে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। পাকিস্তান দল সর্বশেষ ভারত সফর করেছিল ২০১২ সালে। এরপর থেকে রাজনৈতিক কারণে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বন্ধ হয়ে যায়। আগামী অক্টোবরে ভারতের মাটিতে বসতে যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অষ্টম আসর। এই বৈশ্বিক আয়োজন উপলক্ষেই এত বছর পর ভারতের মাটিতে খেলতে যাচ্ছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ হওয়ায় বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তা আছে। তবে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ভিসা ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। পাকিস্তানি সমর্থকদের ব্যাপারে এখন আলোচনা চলছে। সংবাদ সংস্থাকে বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ বলেন, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ভিসা সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। তাদের ভিসা পেতে কোনো সমস্যা হবে না। তবে পাকিস্তানের দর্শকরা সীমান্ত পেরিয়ে খেলা দেখতে আসতে পারবে কি না, এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।’

অনেকিদন ধরেই দুই দেশের, বিশেষ করে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা দ্বিপাক্ষিক সিরিজের দাবি জানিয়ে আসছেন। তাদের বেশিরভাগের মত, রাজনৈতিক ইস্যুগুলোকে ক্রিকেট থেকে দূরে রাখা হোক। ভারতের ‘জামাই’ পাকিস্তানি অল-রাউন্ডার শোয়েব মালিক তো প্রকাশ্যেই বলেছেন, ‘ক্রিকেটের স্বার্থেই ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হওয়া উচিত’। এবার বিশ্বকাপের জন্য পাকিস্তান দলকে ভিসা দিয়ে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের দিকে একধাপ এগিয়ে গেল ভারত- এমনটাই মত অনেকের।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com