সোমবার  ২রা আগস্ট, ২০২১ ইং  |  ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  |  ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী

৫৩ দিন পর ‘ফিরোজা’য় ফিরলেন খালেদা জিয়া

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল থেকে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’য় ফিরেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। দেড় মাসেরও বেশি সময় তিনি এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

আজ শনিবার রাত ৮টা ১০ মিনিটের দিকে হাসপাতাল থেকে গুলশানের ভাড়াবাসা ‘ফিরোজা’র উদ্দেশে রওনা হন তিনি। বাসায় পৌঁছান সাড়ে ৮টার দিকে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। তারপর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে গুলশানের নিজ বাসভবন ফিরোজায় চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। চার দিন পর ১৫ এপ্রিল তাকে নেওয়া হয় এভারকেয়ার হাসপাতালে। সে সময় চিকিৎসকরা জানান, সিটি স্ক্যানের জন্য তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। সে রাতেই বাসায় নিয়ে যাওয়া হয় খালেদা জিয়াকে।

পরে ২৫ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় নমুনা জমা দেওয়ার পর আবারও করোনা পজিটিভ আসে বিএনপি চেয়ারপারসনের। এরপর ২৭ এপ্রিল রাতে ফের শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য তাকে নিয়ে যাওয়া হয় এভারকেয়ার হাসপাতালে। ওই রাতেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে থাকতে খালেদা জিয়ার মোট পাঁচবার জ্বর আসে। এটাকেই চিকিৎসকরা ‘ক্রস ইনফেকশন’ বলে মনে করছেন। তাঁরা বলছেন, এভারকেয়ার হাসপাতালের সর্বোচ্চ চিকিৎসা খালেদা জিয়াকে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু করোনা-পরবর্তী জটিলতায় তাঁর শারীরিক অবস্থা যেখানে দাঁড়িয়েছে, তাতে তাঁর বিশেষায়িত চিকিৎসা দরকার। বিদেশে নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে ‘মাল্টিসিস্টেম ডিজিজ ম্যানেজমেন্টের জন্য অগ্রিম সুবিধা পাওয়া যায়’ এমন একটি উচ্চতর কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার সুপারিশ করে মেডিক্যাল বোর্ড।

এদিকে করোনা মুক্ত হলেও পরবর্তী বেশ কিছু জটিলতায় ভুগছেন খালেদা জিয়া। কিডনি, ডায়াবেটিস, হার্টের সমস্যা দেখা দিলে তাকে সিসিইউতে রেখেই চিকিৎসা করানো হয়। মাঝেমধ্যে তার হিমোগ্লোবিনের মাত্রাও ওঠানামা করে।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com