বৃহস্পতিবার  ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ  |  ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  |  ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

শিশুর যত্নে এই গরম কা‌লে যা করণীয়

হঠাৎ করেই আবহাওয়ার গতিপ্রকৃতি বেশ পাল্টে গিয়েছে। ভ্যাবসা গরমে শিশু থেকে বয়স্ক সবাই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। এই সময়ে শিশুদের প্রতি বিশেষ খেয়াল রাখা প্রয়োজন।

এই সময় ঘাম বসে শিশুদের ঠান্ডা-কাশি, জ্বর হচ্ছে। অনেকে আবার অ্যালার্জি, পেট পরিষ্কার না হওয়া, পানিশূন্যতা সমস্যায়ও ভূগছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই গরমে বিশুদ্ধ পানি পান করলে অনেক সমস্যার সমাধান হতে পারে। অ্যালার্জি বা সর্দি-জ্বর হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

এছাড়াও শিশুদের সুস্থ রাখতে কিছু বিষেয়ে নজর দিতে হবে। যেমন-

১. শিশুদের যতটা সম্ভব পাতলা সুতির পোশাক পরানো উচিত। তাহলে গরমে খানিকটা স্বস্তি পাবে। তার সঙ্গে কিছু সময় পর পর পানি খাওয়ার অভ্যাস করাতে হবে। যদি  শিশু খুব ক্লান্ত হয়ে পড়ে তাহলে সারা দিনে ১০০ মিলি পানিতে সামান্য লবণ-চিনি গুলিয়ে বা স্যালাইন দিতে পারেন। শিশুদের ডাবের পানিও দিতে পারেন। তাদের স্বাভাবিক খাবার দিন। তবে তেল-মসলার খাবার এড়িয়ে চলুন।

২. ঘাম বসে যে কারও ঠান্ডা লাগতে পারে। শিশুদের আরও দ্রুত ঠান্ডা লাগতে পারে। ঘাম হলে সঙ্গে সঙ্গে তা মুছিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করুন। রাতে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় শিশুকে ঘুম পাড়ান। যে ঘর খুব গরম সেখানে না ঘুমোনোই ভালো। শিশুর ঘুম পর্যাপ্ত না হলে ওদের স্বভাব খিটখিটে হয়ে যায়। বাড়িতে যদি এ সি থাকে, সে ক্ষেত্রে ২৫ ডিগ্রি তাপমাত্রায় রাখতে পারেন। একেবারে ছোট শিশুদের ক্ষেত্রে তাপমাত্রা অন্তত ২৭ ডিগ্রি রাখতে হবে।

৩. শরীরচর্চা সব সময়ই ভালো। তবে অনেক রোদে বেশি দৌড়াদৌড়ি করা ঠিক নয়।  বিকেলে রোদ খানিকটা কমলে শিশুদের খোলা জায়গায় নিয়ে যান। প্রতি দিন খানিক ক্ষণ খেললে শিশুদের শরীর মন ভালো রাখে। খেলার সময় সুতির পোশাক পরাই ভালো। বাড়িতে ফিরে যাতে ঠান্ডা পানি না খায় সে দিকে খেয়াল রাখুন।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com