মঙ্গলবার  ১৮ই মে, ২০২১ ইং  |  ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  |  ৫ই শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরী

মিমির সঙ্গে ছবি তুলে দায়িত্ব হারালেন পোলিং অফিসার!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন চলছে। জলপাইগুড়ি সদর বিধানসভা কেন্দ্রের ভোটার অভিনেত্রী সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। পঞ্চম দফায় ছিল তার ভোট। শনিবার বেলা ১টার দিকে তিনি জলপাইগুড়ি পান্ডাপাড়া জুনিয়র বেসিক স্কুলের ১৭/১৫৫ নং বুথে ভোট দিতে যান। নিয়ম অনুযায়ী তার থার্মাল চেকিং হয়। এরপর হাতে গ্লাভস পরে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ঢোকেন তিনি।

মিমিকে দেখে সেলফি তুলতে ব্যস্ত হয়ে ওঠেন নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মীরা। তারকা বলে কথা। যতই নির্বাচনী বিধিনিষেধ থাকুক, রুপালি পর্দায় যাকে দেখে রোজ মুগ্ধ হন, তাকে হাতের সামনে পেলে কি আর উচ্ছ্বাস দূরে সরিয়ে রাখা যায়? মোটেই না। তাই নিজের কর্তব্যও ভুলে গেলেন সেকেন্ড পোলিং অফিসার।

ভোট দিতে ঢোকার পর থেকেই নায়িকার সঙ্গে সেলফি তোলার চেষ্টা করছিলেন সেকেন্ড পোলিং অফিসার। সেই সময় প্রথমে তাকে সতর্ক করেন মিমি। বলেন, ‘আপনার চাকরিটাও যাবে, আমারটাও যাবে।’ এর পর রুপালি পর্দার তারকা তথা সাংসদের ভোট দেওয়া শেষ হতেই ফের তাঁর সঙ্গে সেলফি তোলার আবদার করেন ওই পোলিং অফিসার। ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের বাইরে বেরিয়ে আসেন সেকেন্ড পোলিং অফিসার। নায়িকার সঙ্গে সেলফিও তোলেন তিনি।

ভারতের নির্বাচনীবিধি বলছে, বুথ ছেড়ে পোলিং অফিসারের বাইরে বেরিয়ে আসা নিয়ম বিরুদ্ধ। এতে একদিকে ভোটপ্রক্রিয়ায় বাধা পড়তে পারে। অন্যদিকে ভোট প্রক্রিয়া প্রভাবিত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

এদিন সেই নিয়ম ভাঙেন ওই সেকেন্ড পোলিং অফিসার। এর পরই সেকেন্ড পোলিং অফিসারকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জলপাইগুড়ির জেলা শাসক মৌমিতা গোদারা বসু।

সূত্র: জি নিউজ, সংবাদ প্রতিদিন।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com