বুধবার  ১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ  |  ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  |  ১৬ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

মিঠুনকে কেন নিল? নাঈম শেখকেও নিতে পারত : নাসির

আর দুই দিন পরই শুরু হচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) আসর। সবগুলো দল যখন নিজেদের গুছিয়ে নিয়েছে, তখন সমস্যায় পড়ে গেছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। কারণ জাতীয় দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গেছেন ক্লাবটির ৭ খেলোয়াড়! বিষয়টি নিয়ে ক্লাবের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। আজ রবিবার মিরপুর শেরে বাংলায় দলটির অন্যতম ক্রিকেটার নাসির হোসেন বলেন, মিঠুন-রাজাকে নিয়ে যাওয়ায় তারা এখন দল গঠন করতেই বিপাকে পড়ে গেছেন।

বিজ্ঞাপন

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তামিম ইকবাল, মুস্তাফিজুর রহমান, ইয়াসির রাব্বি, শরিফুল ও মুমিনুল জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন। কিন্তু স্কোয়াডে না থাকলেও মোহাম্মদ মিঠুন আর রেজাউর রহমান রাজাকে নেওয়া হয়েছে স্রেফ অনুশীলনের জন্য। বিষয়টি নিয়ে আজ নাসির হোসেন বলেন, ‘আমার মনে হয় মিঠুন শেষ ৬-৭ মাস জাতীয় দলের স্কোয়াডে ছিল না। হঠাৎ করে চলে গেল। আল্টেমিটলি দলে আমার কিন্তু ৬ জন খেলোয়াড় নেই, আবার এই দুইজন নেই, মানে ৮ জন। তো আমার জন্য এটা ডিফিকাল্ট। আমার জন্য এটা চ্যালেঞ্জিং, তবুও আমি মনে করি যে দেখা যাক লিগে কী হয়। ‘

তিনি আরও বলেন, ‘দলগুলো জানত যে, টেস্ট প্লেয়াররা যাবে (দক্ষিণ আফ্রিকায়)।  সেভাবেই সবাই দল তৈরি করেছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমার কাছে মনে হয়েছে যে এই দলের সঙ্গে আমাদের দুইটা খেলোয়াড় নিয়ে গেছে যারা স্কোয়াডে নেই। ওয়ানডে দলেও নেই, টেস্ট দলেও নেই। মিঠুন এবং রাজা। আমাদের অলরেডি ৬টা খেলোয়াড় নাই, এর মধ্যে আবার যদি দুই জন চলে যায় তাহলে আমাদের টিম দাড় করানোটা অনেক ডিফিকাল্ট হয়ে যায়। তারা যদি খেলতে যেত, আমার কাছে মনেহয় ব্যাপারটা ঠিক ছিল। ‘

নাসির অনুযোগ করে বলেন, ‘তারা তো স্কোয়াডে নাই, শুধু অনুশীলন করতে গেছে। অন্য দলেরও কিন্তু ক্রিকেটাররা ছিল, তাদেরকে নেওয়া হয়নি। শুধু প্রাইম ব্যাংকের দুই জন চলে গেছে। তো ব্যাপারটা আমার কাছে আসলে খুব বেশি ভালো লাগেনি। দেখেন নাঈম শেখও ছিল, ওকে নিতে পারত। মিঠুন এবং রাজা চলে গেল, আমার মনে হয় এই ব্যাপারটা আমার দলের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। ‘

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com