বুধবার  ১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ  |  ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  |  ১৬ই শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

তেল নি‌য়ে তে‌লেসম‌তি : বাড়তি দাম নির্ধারণের জন্যই কারসাজি

ভোজ্য তেলের বাজারে আগে থেকেই অস্হিরতা ছিল, দামও ছিল বাড়তি। গত দুই বছর ধরে প্রায় একই অবস্হা। কিন্তু হঠাৎ করেই বাজার থেকে প্রায় উধাও হয়ে গেছে সয়াবিন তেল, পাম অয়েল। এ যেন তেল নিয়ে তেলেসমাতি কারবার। কিন্তু হঠাৎ করে বাজার থেকে তেল উধাও হওয়ার কারণ কী? ব্যবসায়ীরা বলেছেন, ইন্দোনেশিয়া গত বৃহস্পতিবার থেকে পাম অয়েল রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে। আর্জেন্টিনাও সয়াবিন তেল রপ্তানি সীমিত করার ঘোষণা দিয়েছে। এজন্যই কি ভোজ্য তেলের বাজারের এ অবস্হা। না কি এর পেছনে অন্য কারণ আছে?

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রতি মাসে সয়াবিন, পাম অয়েলের যে দর নির্ধারণ করে দেয়, তা একটি মহলের পছন্দ নয়। তাদের দাবি, ব্যবসায়ীরা নিজেরাই আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে সয়াবিন, পাম অয়েলের দর নির্ধারণ করবেন। গত বৃহস্পতিবার ইন্দোনেশিয়া পাম অয়েল রপ্তানি বন্ধ করে দিলে এই সুযোগটি নেয় একটি চক্র। তারা বাজার থেকে সয়াবিন তেল, পাম অয়েল উধাও করে দেয়। রাতারাতি হুহু করে দাম বাড়তে থাকে সয়াবিন তেল, পাম অয়েলের। অনেকটা বেকায়দায় পড়ে যায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বেশি বিপাকে পড়েন ভোক্তারা।

গত এক মাসের ব্যবধানে কী এমন হলো যে, বাজার থেকে ভোজ্য তেল উধাও হওয়ার মতো অবস্হা হয়েছে? এ প্রশ্ন ভোক্তাদের। গতকাল তুরাগ এলাকার নতুন বাজারে সয়াবিন তেল কিনতে আসা রেজাউল করিম বলেন, আমরা তো ব্যবসায়ীদের কাছে জিম্মি হয়ে গেছি। এক বছর আগে খোলা সয়াবিন তেল কিনেছি ১১০ টাকায়। এখন তা কিনছি ২০০ টাকায়। তা-ও পাওয়া যাচ্ছে না।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, দেশের ভোজ্যতেলের বাজার মূলত আমদানিনির্ভর। সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়া পাম অয়েল রপ্তানি বন্ধ ও আর্জেন্টিনা রপ্তানি সীমিত করার ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে ভোজ্য তেলের বাজার হুহু করে বাড়ছে। সেই সঙ্গে রয়েছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের নেতিবাচক প্রভাবও রয়েছে। তবে বর্তমানে দেশের বাজারে যে সয়াবিন, পাম অয়েল বিক্রি হচ্ছে তা আগের আমদানি করা। এখনই ইন্দোনেশিয়ার পাম অয়েল রপ্তানি বন্ধের প্রভাব বাজারে কেন পড়বে? সংশ্লিষ্টরা বলেছে, এটা কারসাজি ছাড়া আর কিছুই না। এক শ্রেণির অসৎ ব্যবসায়ী কারসাজি করে অধিক মুনাফার লোভে হুহু করে তেলের দাম বাড়াচ্ছে।

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com