মঙ্গলবার  ২১শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং  |  ৮ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ  |  ২৫শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকপঞ্জি চলবে না : মমতা ব্যানার্জি

নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে ব্যাপক প্রচার হবে। এই কর্মসূচিতে সাধারণ মানুষকে শামিল করতে হবে বলে শুক্রবার দলের বিধায়ক ও সাংসদদের নির্দেশ দিলেন তৃণমূলের চেয়ারপারসন তথা ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি

বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, বাংলায় নাগরিকপঞ্জি চলবে না। দু’বার নাগরিকত্ব প্রমাণ করা যাবে না। জন্মের সার্টিফিকেট সকলে দিতে পারবে না। উদ্বাস্তু এলাকাগুলোতে যারা থাকেন, তারা সার্টিফিকেট কোথা থেকে দেবেন?

মমতা প্রশ্ন তুলেছেন, জয়েন্ট পরীক্ষা কেন বাংলা ভাষায় দেওয়া যাবে না? শুধু ইংরেজি, হিন্দির সঙ্গে গুজরাটি ভাষাকেই গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে আন্দোলন করতে হবে। তিনি বলেন, বাংলা ছাড়া আরো তো অনেক ভাষা রয়েছে! সে ভাষাগুলোতে পরীক্ষা দেওয়া যাবে না কেন? কেন মহারাষ্ট্রে মারাঠি ভাষায় প্রশ্নপত্র হবে না? তামিল, তেলুগু ভাষায় পরীক্ষা দেওয়া যাবে না কেন?  ভারতবর্ষে প্রায় ৪০টি ভাষা আছে। প্রত্যেকেই প্রত্যেককে সম্মান দেয়। আমরা চাই ঐক্যবদ্ধ ভারত।

আজকের বৈঠকে বাবরি মসজিদ নিয়েও আলোচনা হয়েছে। সাংবাদিকদের মমতা বলেন, কী রায় বের হবে, আমরা জানি না। মিডিয়া থেকে অনেক কিছু জানতে পারছি। আমরা অপেক্ষা করছি।

বৈঠকে তিনি বলেছেন, এ নিয়ে দলের বাইরে কেউ কোনো কথা বলবেন না। আমরা জানি না কী হবে। সকলকে শান্তিপূর্ণভাবে থাকার জন্য আবেদন করেছি। কোথাও যেন কোনো বিশৃঙ্খলা না হয়। যা বলার আমি বলব।

বৈঠকে মমতা বলেন, প্রচুর টাকা খরচ করে বিজেপি এনজিও বানিয়েছে। ভোটের প্রস্তুতি তারা শুরু করে দিয়েছে। আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। ওরা বিভ্রান্তি ছড়াবে। ছাত্র–যুবককে আরো শক্তিশালী করে তুলতে হবে।

মমতা নিজের কর্মসূচি ঘোষণা করতে গিয়ে বলেন, ২২ নভেম্বর ইডেনে ভারত–বাংলাদেশ টেস্ট ম্যাচ দেখার জন্য সৌরভ আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, ইডেনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত থাকবেন।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com