রবিবার  ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং  |  ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  |  ৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

নারীদের পোশাক নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য : জলিলকে বয়কট শাওনের

দেশজুড়ে চলমান ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনের মাঝে এক ভিডিওবার্তায় ধর্ষণের কারণ হিসেবে নারীদের পোশাককে দায়ী করেন অভিনেতা ও ব্যবসায়ী অনন্ত জলিল। শনিবার নিজের ফেইসবুক পেইজে প্রকাশিত ওই ভিডিও বার্তায় তিনি নারীদের ‘শালীন’ পোশাক পরার আহ্বান জানান। এই ভিডিওটি তার স্ত্রী অভিনেত্রী বর্ষাও নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে শেয়ার করেছেন। এরপর আজ রবিবার অনন্ত জলিলকে বয়কটের ঘোষণা দেন খ্যাতিমান অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন।

তুমুল জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী আজ বিকালে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে লিখেছেন, ‘আমি মেহের আফরোজ শাওন, বাংলাদেশের একজন চলচ্চিত্র ও মিডিয়াকর্মী এবং স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রের সচেতন নাগরিক হিসাবে বাংলাদেশের নারীদের প্রতি কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য এবং অসংলগ্ন বক্তব্য সম্বলিত ভিডিও বার্তা দেয়ার জন্য জনাব অনন্ত জলিলকে বয়কট করলাম।’

আরও পড়ুন : নারীদের পোশাক নিয়ে কুরুচিকর বক্তব্য প্রত্যাহার করলেন জলিল

উল্লেখ্য, অনন্ত জলিল তার ভিডিওর এক পর্যায়ে বলেছেন, ‘শালীন ড্রেস পরলে যারা বখাটে ছেলে যাদের মাথায় ধর্ষণের চিন্তা-ভাবনা আসে, তারাও কোনও এই ধরনের চিন্তা করবে না। শ্রদ্ধার সঙ্গে তোমার দিকে তাকাবে। এবং তাকিয়ে থাকার পর চোখ নিচের দিকে নিয়ে তোমাকে সম্মান জানাবে।’

এর প্রতিক্রিয়ায় ভিডিওর কমেন্টবক্সে জাস্টিন অ্যান্থনি নামের একজন লিখেন, ‘মাদ্রাসার যে ছাত্রটাকে বলাৎকার (ধর্ষণ) করা হয়েছে, তার পোশাকে কি প্রবলেম ছিল? চতুর্থ শ্রেণি ও সপ্তম শ্রেণিতে পড়া বাচ্চা মেয়েগুলোর পোশাকে কি অনেক সমস্যা ছিল?’

বলা বাহুল্য যে, অনন্ত জলিল এই প্রশ্নের জবাব দিতে পারেননি!

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com