শিরোনাম
মঙ্গলবার  ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ  |  ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  |  ১৫ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

নতুন জঙ্গি দলের ‘পাহাড়ি সংযোগ’ পেয়েছে র‌্যাব

সম্প্রতি নিখোঁজ তরুণদের সন্ধানে গিয়ে যে নতুন জঙ্গি সংগঠনের খোঁজ মিলেছে, তার সঙ্গে পাহাড়ি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের যোগাযোগের তথ্য পাওয়ার দাবি করেছে র‌্যাব।

জঙ্গিবাদে দীক্ষা দেওয়ার অভিযোগে কুমিল্লার এক ইমামসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে এসে র‌্যাব কর্মকর্তারা বলেন, ‘জঙ্গিবাদে’ জড়িয়ে গত দুই বছরে বাড়ি ছাড়া ৫৫ তরুণের খোঁজ পেয়েছেন তারা।

তাদের মধ্যে ৩৮ জনের একটি তালিকা সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশ করে র‌্যাবের মুখপাত্র খন্দকার আল মঈন বলেন, “আমরা যাদেরকে আটক করেছি, তাদের তথ্য মতে, এই ৩৮ জন পার্বত্য অঞ্চলে থাকার কথা এখন পর্যন্ত।”

দেশে এর আগে ইসলামী জঙ্গিবাদের বিচরণ ক্ষেত্র হিসেবে পার্বত্যাঞ্চল কখনও সেভাবে আলোচনায় আসেনি।

পাহাড়ে কারা তাদের পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে- জানতে চাইলে আল মঈন বলেন, “পার্বত্য অঞ্চলের বিচ্ছিন্নতাবাদী যে কোনো একটি বা দুটি সংগঠনের ছত্রছায়ায় তারা সেখানে অবস্থান করছে।”

তবে পাহাড়ি সংগঠনের নাম প্রকাশে অনীহা জানিয়ে তিনি বলেন, “পার্বত্য কয়েকটি সংগঠনের নাম পেয়েছি, তবে তাদের নাম এখনই প্রকাশ করছি না।”

দেশের উগ্রবাদী তৎপরতা নিয়ে খোঁজ-খবর রাখেন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক নূর খান লিটন।

জঙ্গিদের সঙ্গে পাহাড়ি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সংযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমার সন্দেহ, এসব বিষয় একই সূত্র থেকে উৎসরিত, তবে এগুলোর তথ্য নানা ফর্মে আমাদের সামনে আসছে।”

র‌্যাবের ভাষ্য অনুযায়ী, নতুন এই জঙ্গি দলটি ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’ নামে সংগঠিত হচ্ছে। ভেঙে পড়া জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি), হরকাতুল জিহাদ আল ইসলামী ও (হুজি) আনসার আল ইসলামের দলছুট একদল নতুন দল গঠনের চেষ্টায় রয়েছে।

র‌্যাব মুখপাত্র আল মঈন বলেন, “আমরা জেনেছি এই সংগঠন পার্বত্য অঞ্চলে কিছু বিচ্ছিন্ন সংগঠনের ছত্রছায়ায় প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। তাদের বিস্তারিত এখনও জানা যায়নি।”

তাদের কী ধরনের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে- সে প্রশ্নে তিনি বলেন, “এখন পর্যন্ত আমরা যাদেরকে পেয়েছি, তাদেরকে বোমা তৈরির প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে, সশস্ত্র সংগ্রামে অংশ নেওয়ার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। তাদের বক্তব্য অনুযায়ী তাদের ৫০ জনের অধিক সদস্য দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলে প্রশিক্ষণ নিয়েছে ও কার্যক্রম পরিচালনা করছে।”

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com