শিরোনাম
শনিবার  ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ ইং  |  ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  |  ১৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

ট্রাম্পের শেষ বাইডেনের শুরু

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন জোসেফ রবিনেট বাইডেন জুনিয়র। হেরে গেলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। একের পর এক রাজ্যে ধাক্কা খেয়েও ভোট পুনর্গণনার দাবিতে অনড় ছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। পেনসিলভানিয়ার চাবি হাতে হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন ৭৭ বছর বয়সী সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেন। ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন বাইডেনের রানিং মেট কমলা হ্যারিসও। ভারতীয় বংশোদ্ভূত এ নারী প্রথম অশ্বেতাঙ্গ হিসেবে ভাইস প্রেসিডেন্টের পদে বসতে যাচ্ছেন।

নির্বাচনের পর চার দিন ধরে ভোটগণনা নিয়ে টানাহেঁচড়ার পর গতকাল শনিবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১১টায় যুক্তরাষ্ট্রের তিনটি প্রচার মাধ্যম সিএনএন, এনবিসি ও সিবিএস যৌথভাবে এ ঘোষণা দেয়। জয় নিশ্চিত হওয়ার পর বাইডেন তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘এখন রাগ-ক্ষোভ একপাশে ঠেলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময়। নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমেরিকান জনগণের এ আস্থা-বিশ্বাস আমাকে সম্মানিত করেছে।’ আর কমলা বলেছেন, ‘সামনে অনেক কাজ পড়ে আছে। এটা আমেরিকান জনগণের ইচ্ছা আর আত্মার জয়।’ এদিকে পরাজয় স্বীকার করেননি ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘তাড়াহুড়া করে জো বাইডেন কেন জয়ী হওয়ার মিথ্যা ঘোষণা দিলেন তা আমরা সবাই বুঝি। নির্বাচন এখনো শেষ হয়ে যায়নি। এর বহু কিছু এখনো বাকি।’ তবে ট্রাম্প যাই বলুন না কেন, এক মেয়াদের প্রেসিডেন্ট হয়েই থেকে যেতে হবে তাঁকে।

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রেসিডেন্ট হিসেবে হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। রেকর্ড পরিমাণ ভোট পেয়েছেন তিনি—সাত কোটি ৪০ লাখের বেশি। যদিও ভোটগণনা এখনো চলছে। এ ক্ষেত্রে অবশ্য ট্রাম্পও কম যাননি। সাত কোটি ভোট পেয়েছেন তিনিও, যা জনপ্রিয় সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার চেয়েও বেশি।

এরই মধ্যে ডেমোক্র্যাট প্রধান রাজ্যগুলোতে উৎসাহ নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়েছে সাধারণ মানুষ। উৎসব শুরু হয়ে গেছে। দীর্ঘ পাঁচ দশকের রাজনৈতিক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন বাইডেনকে তারা বরণ করতে চায় একটু অন্যভাবে। কারণ বাইডেনের এ পর্যন্ত পৌঁছানোর ইতিহাস গতানুগতিক নয়।

এরই মধ্যে বাঁধভাঙা জোয়ারের মতো আসতে শুরু করেছে অভিনন্দন। সম্পর্কে নতুন মাত্রা যোগ করার ইচ্ছা প্রকাশ করে বাইডেন-হ্যারিসকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে জার্মানির অ্যাঞ্জেলা মার্কেল, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ, কানাডার জাস্টিন ট্রুডো, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটো।

জানা গেছে, এখনো ফল আটকে থাকা পাঁচটি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে তিনটিতে এগিয়ে আছেন তিনি। ডাকে আসা ভোটগণনা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে তাঁর সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পার্থক্য। জর্জিয়াতে ভোট পুনর্গণনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে নিয়মানুযায়ী এখনই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা সম্ভব হবে না। এ রাজ্যে চার হাজার ভোটে এগিয়ে বাইডেন।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com