রবিবার  ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং  |  ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ  |  ২২শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকানোর শেষ প্রজন্ম আমরাই

বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় পোলান্ডে প্রায় ২০০ দেশের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে জাতিসংঘ বৈশ্বিক জলবায়ু সম্মেলন। সোমবার শুরু হওয়া এ সম্মেলনে সতর্ক করে বলা হয়েছে, আমরাই শেষ প্রজন্ম যারা সর্বনাশা বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনকে রুখতে পারি।

আর আমরাই প্রথম প্রজন্ম যারা জলবায়ু পরিবর্তনের প্রথম ভুক্তভোগী। এজন্য ২০১৫ সালে প্যারিসে কপ-২১ সম্মেলনে গৃহীত পদক্ষেপগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের তাগিদ দেয়া হয়েছে।

নতুন এক পর্যবেক্ষণের বরাতে বিবিসি জানায়, প্যারিস সম্মেলনে কার্বন নিঃসরণ কমানোর যে প্রতিশ্র“তি রাখা হয়েছিল তা বাস্তবায়নের পথে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পই একমাত্র বাধা।

পোল্যান্ডে দুই সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠেয় এ সম্মেলনে প্রায় ১৯৫ দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নিয়েছেন। এবারের সম্মেলনে প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নের ওপর তাগিদ দেয়া হচ্ছে। এ জন্য ১৪ ডিসেম্বর কপ-২৪ সম্মেলনের সমাপনী দিনে কী সিদ্ধান্ত আসে সেদিকে বিশ্ববাসীর নজর থাকছে।

তবে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বৈশ্বিক রাজনৈতিক পটভূমি। ট্রাম্প জলাবায়ু পরিবর্তন অস্বীকার করে জলবায়ু চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেছেন। তার জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বিরূপ কথাবার্তায় বিশ্বের উগ্র ডানপন্থী বহু নেতা এর ভয়াবহতাকে ভ্রূক্ষেপ করছেন না।

ইতিমধ্যে ব্রাজিলের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বোলসোনারোর প্রশাসন যুক্তরাষ্ট্রকে অনুসরণ করার ঘোষণা দিয়েছেন।

সম্মেলন শুরুর আগের দিন জরুরি বৈঠকে বসেন জাতিসংঘের জলবায়ুবিষয়ক সাবেক চার প্রধান।

তারা বলেছেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিশ্ব এখন এক সংকটময় বাঁকে অবস্থান করছে। সময় যত পার হচ্ছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ততই ভয়াবহভাবে স্পষ্ট হয়ে উঠছে আমাদের সামনে। জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় আমাদের অর্থনীতি ও সমাজ ব্যবস্থার বড় ধরনের পরিবর্তন প্রয়োজন।’

পরে বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন ফিজির ফ্রাঙ্ক বাইনিমারামা, মরক্কোর সালাহেদিন মেজুয়ার, ফ্রান্সের লোহো ফেবিউস ও পেরুর ম্যানুয়েল পুলগার।

বিশ্ব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্রিস্টালিনা জর্জিভা বলেন, ‘স্পষ্টতই আমরাই হলাম শেষ প্রজন্ম যারা জলবায়ু পরিবর্তনের গতিপথ পরিবর্তন করতে পারি। তাছাড়া আমরাই প্রথম প্রজন্ম হিসেবে এর ভয়াবহ প্রভাবেরও শিকার।’

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় পদক্ষেপ নেয়া দেশগুলোকে সহায়তায় বিশ্ব ব্যাংক ২০ হাজার কোটি ডলারের তহবিল ঘোষণা করেছে। জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক বিশ্ব ব্যাংকের পরিচালক জন রোমি বলেন, ‘২০২১-২০২৫ সালের জন্য জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় এ অর্থ ব্যয় করা হবে।’

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com