বুধবার  ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং  |  ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ  |  ১৮ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

কাশ্মীরের চলমান সংকট অত্যন্ত বিপজ্জনক : জাতিসংঘ

কাশ্মীরের চলমান সংকটকে অত্যন্ত বিপজ্জনক আখ্যা দিয়ে এ বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ।

চলতি মাসের শুরু থেকে অবরুদ্ধ জম্মু-কাশ্মীরের বিষয়ে আলোচনার জন্য পাকিস্তান ও চীনের আহ্বানে শুক্রবার নিউ ইয়র্কে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। আলোচনায় চলমান কাশ্মীর সংকটকে ভয়াবহ আখ্যা দিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয় বলে জানান জাতিসংঘে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ঝাং জুন।

জাতিসংঘে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ঝাং জুন বলেন, ‘জম্মু কাশ্মীরের মানবাধিকার পরিস্থিতির পাশাপাশি বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে নিরাপত্তা পরিষদ গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। এমনিতেই বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ, তাই যে কোন সহিংসতা এড়াতে এক পাক্ষিক কোন সিদ্ধান্ত না নিতেও ভারত ও পাকিস্তানকে আহ্বান জানানো হয়েছে।’

কাশ্মীরের স্বায়ত্বশাসন বাতিল, ভারতের সম্পূর্ণ অভ্যন্তরীণ বিষয় উল্লেখ করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অনধিকার চর্চা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন ভারতের জাতিসংঘ দূত। তবে পাকিস্তানের দাবি, কাশ্মীর ইস্যুটি মোটেই ভারতের অভ্যন্তরীণ নয়, বরং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় স্বীকৃত বিতর্কিত একটি বিষয়।

ওদিকে, সংকট সমাধানে ইমরান খানকে, নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে বসার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বিতর্কিত কাশ্মীর নিয়ে শান্তিপূর্ণ সমাধানে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মালিহা লোদি বলেন, ‘শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে কাশ্মীরিদের ন্যায্য দাবি দাওয়া তুলে ধরা হয়েছে। তারা একা নয়। তাদের দুঃখ দুর্দশা ও যন্ত্রণা সব কিছু শুনেছে নিরাপত্তা পরিষদ। পুরো বিশ্ব কাশ্মীর নিয়ে উদ্বিগ্ন।’

অন্যদিকে, কাশ্মীরের স্বায়ত্বশাসন বাতিলকে নিজেদের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে দাবি করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত সায়েদ আকবর উদ্দিন। নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকের প্রতিক্রিয়ায় কাশ্মীর ইস্যুতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের হস্তক্ষেপকে অনধিকার্চা আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মাথা না ঘামালেও চলবে।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত সায়েদ আকবর উদ্দিন বলেন, ‘একশ কোটির বেশি জনসংখ্যার দেশ ভারত। আমাদের নিজেদের বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। আমাদের কীভাবে চলতে হবে তাও শিখিয়ে দেয়ার প্রয়োজন নেই। দেশগুলোর বিভিন্ন সমস্যা কূটনৈতিক উপায়ে সমাধান করা যায়। তবে কোন স্বাভাবিক রাষ্ট্র সন্ত্রাসীদের ব্যবহার করে নিজেদের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য উঠে পড়ে লাগে।’

এদিকে, পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেছেন, কাশ্মীর যে ভারতের কোন অভ্যন্তরীণ বিষয় নয় তা নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক থেকেই তা স্পষ্ট। বরং এটি বিশ্ব স্বীকৃত আন্তর্জাতিক একটি সমস্যা বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত পাকিস্তান সীমান্তের নিয়ন্ত্রণ রেখায় থেমে থেমেই দু দেশের সেনাদের গুলি বিনিময়ের খবর প্রকাশ করেছে গণমাধ্যমগুলো। যে কোন মুহূর্তে দেশ দুটি যুদ্ধে লিপ্ত হতে পারে বলেও আশঙ্কা বিশ্লেষকদের।

আগে পারমাণু অস্ত্রের ব্যবহার করবে না বলে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ভারত তা থেকেও সরে আসতে পারে দেশটি। এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশটির কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। তাদের এই সিদ্ধান্ত ভবিষ্যত পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে বলেও জানান তিনি। অনেকে এই ইঙ্গিতকে পাকিস্তানে পরমাণু হামলার পরোক্ষ হুমকি বলেই মনে করছেন।

এরমধ্যেই আলোচনার মাধ্যমে কাশ্মীর ইস্যুতে চলমান সংকট সমাধানের আহ্বান জানিয়েছে্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে তাকে টেলিফোন করেন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এ সময় সংকট সমাধানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে বসারও আহ্বান জানান ট্রাম্প।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com