মঙ্গলবার  ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং  |  ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ  |  ৭ই রমযান, ১৪৪২ হিজরী

ওমান ও সৌদি ফ্লাইট স্থগিত করল বিমান

করোনা মহামারির কারণে বিশ্বজুড়ে আবার বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বিভিন্ন দেশ। সংক্রমণ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বিমান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বিশ্বের ২০টি দেশ। তবে বাংলাদেশ থেকে এখনো যুক্তরাজ্যে ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত জানা যায়নি। বর্তমানে ঢাকা ও সিলেট থেকে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনা করছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস।

এদিকে, ওমান সরকার নিষেধাজ্ঞা প্রদান করায় ২২ ডিসেম্বর থেকে এক সপ্তাহের জন্য মাস্কাট গামী বাংলাদেশ বিমানের সকল ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এরই মধ্যে সৌদি আরব আন্তর্জাতিক সব রুটে এক সপ্তাহের জন্য বিমান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে। দেশটির নিষেধাজ্ঞার কারণে সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য জেদ্দা, রিয়াদ ও দাম্মামগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। ভারত আপাতত ২৩-৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বিমান চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যুক্তরাজ্য ভ্রমণেও জারি হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোকাব্বির হোসেন এক ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘২১ ডিসেম্বর থেকে এক সপ্তাহের জন্য সৌদি আরব সকল আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে। সেখানে একটি ইঙ্গিত রয়েছে, এরপরে এই নিষেধাজ্ঞাটি আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে। সে কারণে আমরা আপাতত এক সপ্তাহ সৌদিতে বিমানের তিনটি গন্তব্যের মোট ২১টি ফ্লাইট বাতিল করেছি।’

তিনি জানান, এই ফ্লাইটগুলোতে বাংলাদেশ থেকে পাঁচ হাজার ১০০ জন যাত্রী যাওয়ার এবং সৌদি আরব থেকে প্রায় ৬ হাজার যাত্রী আসার জন্য নির্ধারিত ছিল। আমরা ফ্লাইট চালু হলে ফ্লাইট খালি থাকা সাপেক্ষে আমরা বিনা চার্জে তাদেরকে আসন পুনঃবরাদ্দ করা হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন গতকাল একটি টেলিভিশন চ্যানেলের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ যেন মারাত্মক আকার ধারণ না করে, সেজন্য এই মুহূর্তে আন্তজার্তিক রুটের সব ফ্লাইট চলাচল ফের বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন। আন্তর্জাতিক রুটের সব ফ্লাইট বন্ধ করার ব্যাপারে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়সহ সরকারের উচ্চ মহলে জানিয়েছেন বলে জানান তিনি।

জানতে চাইলে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এখনো যুক্তরাজ্যের সঙ্গে ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়নি।’

এদিকে সংক্রমণ ঠেকাতে সিডনিকে পুরো অষ্ট্রেলিয়া থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয়েছে। নতুন প্রজাতির করোনার সংক্রমণ মোকাবেলায় সবার আগে পদক্ষেপ নিয়েছে কানাডা। তিন দিনের জন্য যুক্তরাজ্যের সঙ্গে ফ্লাইট বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কানাডার স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত ফ্রান্স, জার্মানি এবং ইতালিও ব্রিটেনের সঙ্গে সব ধরনের বিমানযাত্রা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে। পাশাপাশি দেশটির সঙ্গে ট্রেনযাত্রাও স্থগিত করেছে এই তিন দেশ। তবে বাংলাদেশ থেকে এখনো যুক্তরাজ্যে ফ্লাইট বন্ধের কথা জানানো হয়নি।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com