বুধবার  ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং  |  ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ  |  ১৮ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

উত্তাল বঙ্গবাজার এলাকা

রাজধানীর হাইকোর্ট ক্রসিংয়ের সামনে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। দুর্নীতির দুই মামলায় আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার হাজিরাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপির নেতাকর্মীরা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে বাধা দেয় পুলিশ, এরপরই শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া।
পুলিশের ওপর ইট-পাটকেলও নিক্ষেপ করেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা। পরে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে বঙ্গবাজারের সামনে ভাঙচুর ও মোটরসাইকেলে আগুন দেন বিএনপি সমর্থকরা। ঘটনাস্থল থেকে ৭ বিএনপি নেতাকর্মীকে আটকও করেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বঙ্গবাজার ও পার্শ্ববর্তী সচিবালয় এলাকায় বিএনপির নেতা-কর্মীরা মিছিল করেন। এ সময় মিছিলকারীদের পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশি ধাওয়ার পর বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা বেশ কয়েকটি যানবাহন ভাঙচুর করেন। বঙ্গবাজার মোড়ে একটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

এ সময় পুলিশ মিছিলকারীদের ওপর লাঠিপেটা করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েকটি কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে। ঘটনাস্থল থেকে কয়েকজনকে আটক করা হয়। এঁদের মধ্যে আমিনুল হককে প্রিজন ভ্যানে তোলা হয়।
এ বিষয়ে ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার সাংবাদিকদের বলেন, খালেদা জিয়ার আদালত থেকে ফেরার সময় সচল রাস্তা অচল করে অবস্থান নেয় ছাত্রদল ও বিএনপির নেতাকর্মীরা। রাস্তা থেকে অবস্থান সরিয়ে নেয়ার কথা বললে তারা পুলিশের উপর ইটপাটকেল মারতে শুরু করে। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারশেল ছোড়া হয়। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে তারা বঙ্গবাজারের দিকে চলে যায়।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com