রবিবার  ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং  |  ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  |  ১০ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

ইন্দোনেশিয়ায় বিধ্বস্ত বিমানের ‘ব্ল্যাক বক্স’ উদ্ধার

শনিবার জাভা সাগরে বিধ্বস্ত হওয়া বোয়িং ৭৩৭ বিমানের দুটি ‘ব্ল্যাক বক্সের’ একটি উদ্ধার করেছে ইন্দোনেশিয়ার অনুসন্ধান দল। বিমানের ডেটা রেকর্ডার এই ব্লাক বক্সটিকে উপকূলে আনা হয়েছে। তবে এখনো ককপিট ভয়েস রেকর্ডার সনাক্ত করার চেষ্টা করছে অনুসন্ধানকারীরা।

কর্তৃপক্ষ আশা করছে যে ব্লাক বক্সগুলি থেকে প্রাপ্ত তথ্য বিমানটি বিধ্বস্তের সম্ভাব্য কারণ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেবে। বোয়িং ৭৩৭ সমুদ্রের ডুবে যাওয়ার সময় এতে ৬২ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের কাউকেই জীবিত উদ্ধার সম্ভব হয়নি।

এর আগে, গত রবিবার দেশটির জাতীয় পরিবহন নিরাপত্তা কমিটির প্রধান সোয়েরজান্তো জাহজোনো এক বিবৃতিতে বলেন, বিধ্বস্ত এসজে ১৮২ ফ্লাইটটির দুটি ব্ল্যাক বক্সের অবস্থান শনাক্ত করা হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার সামরিক বাহিনীর প্রধান হাদি জাহজান্তো বলেছেন, আমরা শীঘ্রই ব্ল্যাক বক্স গুলো পুনরুদ্ধার করতে পারব। এরপর আজ মঙ্গলবার একটি ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার সম্ভব হল।

৬২ যাত্রী নিয়ে বিধ্বস্ত বিমানটির সব আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা দুর্ঘটনার স্থান খুঁজে পেয়েছেন। তারা ধারণা করছেন, বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি উড্ডয়নের চার মিনিটের মাথায় সাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে। ফলে বিমানের কোনো যাত্রীর বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই।

স্থানীয় সময় শনিবার দুপুরে রাজধানী জাকার্তা থেকে বিমানটি উড্ডয়ন করেছিল। পরবর্তীকালে সাগরের ওপরে ১০ হাজার ফুট উচ্চতায় থাকা অবস্থায় বিমানটি নিখোঁজ হয়ে যায়। তারপর থেকেই বিমানটির সঙ্গে কন্ট্রোল রুম থেকে আর যোগাযোগ করা যায়নি। বিমানটিতে ১০ শিশুসহ ৫০ জন যাত্রী এবং ১২ জন ক্রু ছিল। বিমানে থাকা সব আরোহীই ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com