বৃহস্পতিবার  ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ  |  ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ  |  ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ইউরোপে প্রকৃ‌তি ধ্বং‌ষের কর‌নে চরম তাপপ্রবাহে দাবানল জ্বল‌ছে

দক্ষিণ পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলোতে শনিবার (১৬ জুলাই) পর্যন্ত টানা ৬ দিনের মত চরম তাপপ্রবাহ অব্যাহত। এর মধ্যে কোথাও কোথাও প্রচণ্ড দাবানলও সৃষ্টি হয়েছে। ফ্রান্স, পর্তুগাল আর স্পেনে দাবানল মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছেন দমকলকর্মীরা। দাবানলের কারণে শত শত লোককে তাদের বাড়ি থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। 

শুক্রবার আগুন নেভাতে গিয়ে ব্রাগাঙ্কা অঞ্চলে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত হয়েছেন চালক। এ পর্যন্ত দাবানলে একজন নিহত, ৬০ জন আহত হয়েছে এবং নয়শ’ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

স্পেনে শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ৪৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  মালাগার কয়েকটি এলাকায় দাবানল দেখা গেছে। ২৩শ’ মানুষকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলে শুক্রবার তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া দেশটিতে  গত ১০ জুলাই থেকে ৩ দিনে দাবদাহে ৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

HEATwaveদাবানল মোকাবিলার চেষ্টায় দমকলকর্মীরা।

ব্রিটেনের আবহাওয়া অধিদপ্তর ‘চরম তাপপ্রবাহের ‘ কারণে ‘রেড’ ওয়ার্নিং জারি করেছে। সোম এবং মঙ্গলবার সেখানে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যাবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে তারা। ২০১৯ সালে সেখানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল।

যুক্তরাজ্যের হাসপাতালগুলোকে তাপজনিত অসুস্থতায় রোগী ভর্তির জন্য সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে। ট্রেনগুলো আগে থেকেই জানিয়ে দিয়েছে, অনেক যাত্রা বাতিল হতে পারে।

আয়ারল্যান্ডের ‘ওয়ার্ম ওয়েদার’ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। রোববার থেকে মঙ্গলবার চরম আবহাওয়া থাকতে পারে বলে জানিয়েছে তারা। আগামী সপ্তাহে বেলজিয়ামেও তাপমাত্রা বাড়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। বিবিসি, ডয়চে ভেলে, আল জাজিরা।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com