সোমবার  ১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং  |  ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ  |  ২০শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

‘আমাকে আজীবনের জন্য রাজনীতি থেকে সরানোর চেষ্টা চলছে’

আজীবনের জন্য রাজনীতি থেকে সরাতেই উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে সব করা হচ্ছে—পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এমন অভিযোগ করেছেন বটে, তবে অভিযোগটি কাদের বিরুদ্ধে, সেটা তিনি স্পষ্ট করেননি। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে সাত মাস আগে প্রধানমন্ত্রিত্ব আর গত বুধবার দলীয় সভাপতির পদ খোয়ানো নওয়াজ গতকাল বৃহস্পতিবার আক্ষেপের সঙ্গে এ অভিযোগ করেন।

কথিত পানামা পেপারস ফাঁস হওয়ার পর দুর্নীতির অভিযোগে গত বছর ২৮ জুলাই নওয়াজের প্রধানমন্ত্রিত্ব কেড়ে নেন সর্বোচ্চ আদালত। এরপর একই অভিযোগে গত বুধবারের রায়ে বাতিল হয়ে যায় তাঁর দলীয় প্রধানের পদ। শুধু তা-ই নয়। গত বছর ২৮ জুলাইর পর থেকে পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) প্রধান হিসেবে তিনি যেসব দলীয় সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, সেগুলোও বাতিল করেছেন সুপ্রিম কোর্ট।

ক্ষুব্ধ নওয়াজ গতকাল বলেন, ‘এখন শুধু আমিই বাকি আছি। থেকে গেছে আমার নাম মুহাম্মদ নওয়াজ শরিফ। সেটাও যদি আপনারা কেড়ে নিতে চান, তো নিন। সংবিধানের একটা ধারা খুঁজে বের করুন। আপনারা হয়তো সেটা পেয়েও যাবেন। সেটার মাধ্যমে আপনারা মুহাম্মদ নওয়াজ শরিফ নামটা কেড়ে নিতে পারবেন। আর যদি আপনারা সে রকম ধারা খুঁজে না পান, তাহলে কালো আইন অভিধানের সাহায্য নিন।’ না বললেই নয়, কালো আইন অভিধান থেকে ‘সম্পদ’ শব্দটির ব্যাখ্যা সুনির্দিষ্ট করে নওয়াজের বিরুদ্ধে পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিসংক্রান্ত রায় দেন আদালত।’ পানামা পেপারসের জেরে দায়ের হওয়া অন্য মামলায় গতকাল হাজিরা দিয়ে বের হওয়ার পর নওয়াজ এসব কথা বলেন।

নওয়াজের দাবি, যেভাবে সর্বোচ্চ আদালত তাঁর প্রধানমন্ত্রিত্ব কেড়ে নিয়েছেন, পাকিস্তানের কোনো আইনেই আদালতকে তেমন অধিকার দেওয়া হয়নি। তিনি আরো বলেন, ‘এখন তারা নওয়াজ শরিফকে আজীবনের জন্য রাজনীতিতে অযোগ্য ঘোষণার জন্য আরো রাস্তা খুঁজছে। এসব কী?’

সুপ্রিম কোর্টের রায়ে নওয়াজ নিজের রাজনৈতিক জীবন খোয়ালেও রক্ষা পেয়েছেন তাঁর মনোনীত সিনেট নির্বাচনের প্রার্থীরা। গত বুধবার সর্বোচ্চ আদালত পিএমএল-এন প্রধান হিসেবে নওয়াজের নেওয়া গত সাত মাসের সব দলীয় সিদ্ধান্ত বাতিল করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাঁর মনোনীত সিনেট নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রার্থিতাও বাতিল হয়ে যেতে পারত। তবে নির্বাচন কমিশন গতকাল পিএমএল-এনের ওই সব সদস্যকে স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোষণা করেছে। দিনের শুরুতে পিএমএল-এন চেয়ারম্যান রাজা জাফরুল হক ওই সব সদস্যকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে ফের মনোনয়ন দিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন। তবে কমিশন পিএমএল-এন নেতাদের স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোষণা করেন।

পিএমএল-এন চেয়ারম্যান জাফরুল গতকাল তাঁর দলীয় কর্তৃত্বসংক্রান্ত চিঠি ও অন্যান্য কাগজপত্র নির্বাচন কমিশনে জমা দেন। সেখান থেকে বেরিয়ে তিনি সংবাদমাধ্যমকে এসব কথা বলেন। দলের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে এবং আগামী সপ্তাহে নতুন সভাপতি নির্বাচন করা হবে। নতুন সভাপতি হিসেবে নওয়াজের মেয়ে মরিয়ম ও ভাই শাহবাজ শরিফের নাম নিয়ে সংবাদমাধ্যমে গুঞ্জন চলছে।

গত বুধবার নওয়াজের বিরুদ্ধে দেওয়া সুপ্রিম কোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন পাকিস্তান তেহরিক ই ইনসাফ (পিটিআই) নেতা সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান। তিনি বলেন, ‘জাতীয় সম্পদ চুরির দায়ে অপরাধী একজন ব্যক্তি নায়ক হতে পারে না।’ পাকিস্তান পিপলস পার্টির কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারির অভিমত, আদালতের রায়ের প্রতি সম্মান দেখানো প্রত্যেকের দায়িত্ব। সূত্র : ডন।

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com