মঙ্গলবার  ২রা মার্চ, ২০২১ ইং  |  ১৮ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  |  ১৭ই রজব, ১৪৪২ হিজরী

আগেই জানতাম দলের কৌশল ভুল : পাপন

উইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ধোলাই হওয়ার পর মিডিয়ার সামনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছিলেন বিসিবি বস নাজমুল হাসান পাপন। সবার জবাবদিহি চাওয়ার হুমকিও দিয়েছিলেন। পরেরদিন বলেছিলেন, রাগের বশে ওসব বলেন। আজ বললেন, তিনি আগেই জানতেন যে দলের পরিকল্পনা আর কৌশলে ভুল ছিল। তবে এখন তিনি খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন কৌশল ও পরিকল্পনার সমস্যা কোথায়। কয়েক মাসের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে বলেও তার বিশ্বাস।

আজ বৃহস্পতিবার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ক্রিকেটারদের করোনাভাইরাসের টিকাদানের আয়োজনে গিয়ে গণমাধ্যমকে পাপন বলেন, ‘পরিকল্পনা ও কৌশল নিয়ে কিছু ইস্যু আছে। এটা আগে থেকেই মনে করতাম যে প্রতিটি ভুল। কিন্তু প্রথমবার যখন আফগানিস্তানের সঙ্গে হয়েছে, সবাই ধরে নিয়েছিল এটা একটা দুর্ঘটনা। হঠাৎ হয়ে গেছে। কিন্তু এবার দুটো ম্যাচ খেলার পরে সবাই বুঝতে পারছে, কোথাও সমস্যা আছে।’

তিনি বলেন, ‘সিদ্ধান্ত, পরিকল্পনা ও কৌশল যা হচ্ছে, আগের সঙ্গে কোনো মিল আমি পাচ্ছি না। আমি জানতে চাচ্ছিলাম, কে পরিকল্পনা করছে, কে কৌশল তৈরি করছে, কেন করছে। ওরা বলল, ‘এই জায়গায় সমস্যা।’ তখন সঙ্গে সঙ্গে জানতে চাচ্ছি, ‘এটা হলো কেন?।’ আগে তো সবকিছু তাদের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হতো। এখন নিজেরা নিচ্ছে, তাহলে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। এইখানটায় দেখতে গিয়ে অনেক কিছু দেখা হচ্ছে। যারা যে সমস্ত দায়িত্বে আছেন, প্রত্যেককে বলা হয়েছে তাদের যে দায়িত্ব, একটা কাজ করে দিয়েই শেষ হয়ে যায় না। ওদের আরও বেশি সম্পৃক্ত থাকা নিয়ে আলাপ হয়েছে।’

দলের সঙ্গে তার যোগাযোগে একটি বড় ঘাটতি থেকে যাচ্ছে বলে মনে করেন বিসিবি প্রধান, ‘ইনফরমেশন গ্যাপ এত হচ্ছে কেন, এটা নিয়ে আলাপ হয়েছে, যেন এটা মিনিমাইজ করা যায়। আগে তো এই সমস্যা হয়নি। উদাহরণস্বরূপ, আগে খালেদ মাহমুদ সুজন আমাদের ম্যানেজার ছিল। দল ও বোর্ডের মধ্যে সংযোগ ছিল সে। কোচের সঙ্গে কী হচ্ছে না হচ্ছে, আমরা সবসময় জানতে পারতাম। আমি অন্তত জানতে পারতাম কী হচ্ছে না হচ্ছে। এখন কিন্তু আমি জানি না। মাঠে নামার পর জানতে পারি। বিরাট একটা কমিউনিকেশন গ্যাপ তো হচ্ছেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাঠে কে নামবে, কে কত নম্বরে খেলবে, এগুলো তো আগে জানতাম। এখন তো জানি না। নামার পরে দেখছি। কয়েকবার টিভিতে বলেছি, আমি জানি না। আমাকে যেটা বলা হয়, সেটা হয় নাই। ভারতে একটি খেলায় টসে জিতলে বলেছে ফিল্ডিং নেব। নামার পরে দেখি ব্যাটিং। বিশ্বকাপে দেখেছি…এই খেলার আগে দেখেছি যে অন্তত দুজন পেসার খেলবে। খেলেনি তো! আমার কথা হচ্ছে, কেন হচ্ছে, এটাই বের করতে চাচ্ছি।’

তবে নাজমুল হাসান মনে করেন দ্রুতই এসব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, ‘একটা জিনিস আমি আপনাদের বলতে পারি, সমস্যা কোথায় এটা যে কেউ বুঝি না বা জানি না, তা নয়। কিন্তু যে পদ্ধতি দিয়ে যাচ্ছি এখন, এটাই আমার মনে হয় সঠিক পদ্ধতি। ‘এটা করবা না, ওটা করবা না’ বলার চেয়ে, এইভাবে ওদেরকে একটা প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এনে যেটা করা হচ্ছে, এটা হচ্ছে আরও ভালো। আগে সোজা বলে দিতাম, ‘এটা করো, ওটা করো।’ এখন এটা করি না। এই সমস্যার সমাধান কোনো কঠিন ব্যাপার নয়। কিন্তু সবাই যাতে সমস্যাটায় একমত হয়, তাহলেই সমস্যা সমাধানের জন্য কাজ করতে হবে। জোর করে চাপিয়ে দেওয়া যায় না। এই প্রক্রিয়াটাই হচ্ছে। এটা কেবল সময়ের ব্যাপার। কয়েক মাসের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে।’

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com